রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ১০:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
একজন দুঃখীনি মায়ের গল্প কৃষ্ণকলি ইমু গ্রুফের শ্রীমদ্ভাগবদগীতা পাঠ ও ভজনগীতি প্রতিযোগীতা ২০২১ এর ফাইনাল রাউন্ড   অনুষ্ঠিত। এড.তপন কান্তি দাশের শুভ জন্মদিনে বিভিন্ন সংগঠনের শুভেচ্ছা বার্তা গীতাঞ্জলি মাতৃ সম্মিলনী এর মানবিক প্রয়াস কৃষ্ণকলি ইমু গ্রূপ’র শ্রীমদ্ভাগবত গীতা ও ভজনগীতির ফাইনাল রাউন্ড ৩০শে এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টায় ধামরাইয়ে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ -২০২১ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও গর্ভবতী মায়েদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কিশোরগঞ্জ গুরু দয়াল সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যাপক প্রানেশ কুমার চৌধুরীর পরলোকগমন। সংখ্যালঘু শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির কোটা বণ্টনে শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) ধামরাইয়ে শ্রীশ্রী যশোমাধব মন্দির কমিটির সদস্য অমিয় গোপাল বনিকের পরলোকগমন বোয়ালখালীতে সংগীতশিল্পী ও গীতাপাঠক বিধান দাসের গীতা পাঠের মাধ্যমে সূর্য মোহন দাসের ক্রিয়া ও গীতাপাঠ অনুষ্ঠান সম্পন্ন

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ৮৩ কেজি ওজনের কষ্টি পাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার

Spread the love

 বিকাশ চন্দ্র স্বর্নকার ঃ গত ১৬ এপ্রিল শুক্রুবার গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার অদুরে বৈরাগীহাট তদন্ত কেন্দ্রের ইন্সপেক্টর মিলন চ্যাটার্জীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ৮৩ কেজি ওজনের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করেছে।উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের আলীগ্রাম শ্রমিকরা সরকারি পবনা পুকুর খনন কালে সন্ধ্যা ৭ টার সময় কালো পাথরের তৈরি একটি কষ্টি পাথরের বিষ্ণুমূর্তি দেখতে পায়।

সে সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ওই পুকুরের পাহারাদার শ্রী শৈলেন চন্দ্র এর ছেলে শ্রী ভোলানাথ চন্দ্র সাং আলীগ্রাম থানা গোবিন্দগঞ্জ তিনি মূল্যবান জিনিস মনে করে ওই গ্রামের আমিরুলের বসত বাড়িতে নিয়ে গিয়ে মাটির নিচে পাথরের মূর্তিটি পুঁতে রাখে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৈরাগীহাট তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মিলন চ্যাটার্জী সহ সঙ্গীয় অফিসার মিলে ১৬ এপ্রিল রাত ২টায় অভিযান চালিয়ে আলী গ্রামের আমিরুলের বাড়ির পিছনে মাটির নিচ হতে হিন্দুদের আরাধ্য বিষ্ণু মূর্তিটি উদ্ধার করেন। বৈরাগি হাটের তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মিলন চ্যাটার্জী বলেন,সরকারী পুকুরে ভেকু দ্বারা মাটি খননকালে অনুমান সন্ধায় শ্রমিকরা পাথরের মুর্তিটি দেখতে পান ৷

এরপর তারা সেটি মুল্যবান অনুমান করে পার্শ্ববর্তী মোঃ আমিরুলের বসত বাড়ির পিছনে মাটির নিচে পুতে রাখে ৷অবশেষে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ওই মুর্তিটি উদ্ধার করা সম্ভব হয় ৷ গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,উদ্ধারকৃত পাথরের বিষ্ণুমূর্তি টি আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে বগুড়ার মহাস্থান প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘরে জমা দেয়া হবে।



আমাদের ফেসবুক পেইজ