শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বসন্তেশ্বরী’র প্রিমিয়ার সো আগামি ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার, চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউট। প্রাবন্ধিক রূপম চক্রবর্ত্তী’র সমাজ রাজনীতি ও সংস্কৃতির খেরোখাতা ভারতে হাইকোর্টের এএসআই দ্বারা তাজমহলের ২২ টি বন্ধ ঘর খোলার অনুমতি ভারতে নাগরিকত্ব পেতে ব্যর্থ হয়ে পাকিস্তানে ফিরে গেছেন প্রায় ৮০০ হিন্দু শরণার্থী। নানান মাঙ্গলিক আয়োজনে অনুষ্ঠিত জাগো হিন্দু পরিষদ পটিয়া উপজেলার কর্মী সম্মেলন বাংলাদেশ মহিলা ঐক্য পরিষদ এর কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার ত্রি বার্ষিক সম্মেলন ২০২২ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সঙ্গে মার্কিন বিশেষ দূতের সঙ্গে বৈঠক মায়ের আর্তনাদে মেয়েদের সম্মেলিত প্রচেষ্টা বাসন্তী পূজায় ও বসন্ত উৎসবে বাগীশ্বরী সংগীতালয় ভারতের উত্তরপ্রদেশ জেলবন্দিদের মানসিক শান্তির জন‍্য শোনানো হবে গায়ত্রী মন্ত্র ও মহা মৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র

টাকার জন্যই মা-মেয়েকে খুন করেছে জুবায়ের

Spread the love

নারায়ণগঞ্জ নগরীর ব্যবসাস্থল ডালপট্টি এলাকায় ছয়তলা আবাসিক ভবনের ফ্ল্যাটে মা ও সাড়ে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে টাকার জন্য কুপিয়ে খুন করেছে বলে পুলিশের কাছে তথ্য দিয়েছে আটক হওয়া যুবক জুবায়ের।

মঙ্গলবার (১ মার্চ) বিকেল ৩টার দিকে রক্তমাখা ছুরিসহ ঘটনাস্থল থেকে তাকে আটক করা হয়। যে ফ্ল্যাটে হত্যাকাণ্ড ঘটে সেটির একটি কক্ষের দরজা ভেঙে পুলিশ তাকে আটক করে। এর আগে একই দিন ওই ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহত ব্যক্তিরা হলেন, রিতু চক্রবর্তী (২২) ও তার মা রুমা চক্রবর্তী। রিতু চক্রবর্তী সাড়ে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে জানিয়েছেন তার বাবা রাম প্রসাদ চক্রবর্তী।আটককৃত জুবায়ের নগরীর পাইকপাড়া এলাকার আলাউদ্দিনের ছেলে। তিনি ব্যবসায়ী ছিল। করোনার কারণে ব্যবসায় ক্ষতি হওয়ার পর থেকে সে বিষন্নতায় ভুগছিল।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে মা রুমা চক্রবর্তী (৪৬) ও মেয়ে ঋতু চক্রবর্তীরকে (২২) হত্যার পর জুবায়ের তাদের পুত্রবধূ ফারজানাকে হত্যা করতে বটি নিয়ে হামলা চালায়। তখন পুত্রবধূ তার হাতের বটি কেড়ে নিয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে ভবনের নিচে গিয়ে ডাকাত বলে চিৎকার করে। এ সময় ব্যবসায়ীরা ওই ভবনের প্রধান গেট বন্ধ করে দিলে হত্যাকারী জুবায়ের আটকা পড়ে। পরে স্থানীয়রা ৯৯৯ নম্বরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মা-মেয়ের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ রক্তমাখা গ্লাভস পরা অবস্থায় জুবায়েরকে আটক করে। এ সময় ওই ফ্ল্যাট থেকে একাধিক হ্যান্ড গ্লাভস, ধারালো তিনটি ছুরি, একটি বটি উদ্ধার করা হয়। জুবায়ের স্বীকার করে জানিয়েছে টাকার জন্যই তাদের হত্যা করেছে সে।
নিহত রুমা চক্রবর্তীর স্বামী রাম প্রসাদ চক্রবর্তী বলেন, আমার সঙ্গে কারও শত্রুতা নেই বা ছিলও না। কেন এই হত্যাকাণ্ড ঘটল আমি জানি না। আমি খবর পেয়ে এসে দেখি আমার বাড়ির নিচে ও ফ্ল্যাটে পুলিশ।

তিনি বলেন, আমার এক ছেলে ও এক মেয়ে। ছেলে হৃদয় চক্রবর্তী কয়েক মাস আগে মুসলিম হয়েছে এবং ফারজানা নামে একটি মেয়েকে বিয়ে করেছে। আমরা প্রথমে বিষয়টি মেনে নেইনি। কিন্তু পরে মেনে নিয়েছি। গত কয়েক দিন থেকে পুত্রবধূ ফারজানা এই ফ্ল্যাটেই থাকছে। আমার মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা থাকায় সে আমার বাড়িতে এসেছিল। তার স্বামী শ্যামল চক্রবর্তী চট্টগ্রামে পুরোনো গাড়ির ব্যবসা করে। তিনি আরও বলেন, বাড়ির সামনে পুলিশ ও এলাকাবাসীর জটলা দেখে স্ত্রীর মোবাইল ফোনে (নিহত রুমা চক্রবর্তী) ৩-৪বার ফোন দিলে অপরপ্রান্ত থেকে ঘাতক জোবায়ের বারবার টাকা ও স্বর্ণালংকার কোথায় আছে তা জানতে চাচ্ছিল। টাকা ও স্বর্ণালংকার দিলে খুন করবে না বলেও জানাচ্ছিল জোবায়ের। আমি বলেছিলাম- তোমাকে টাকা দেব ওদের মের না। কিন্তু এর আগেই মনে হয় যা ঘটবার ঘটে গেছে।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আমীর খসরু জানান, মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আটক হওয়া যুবক জুবায়ের রাতে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে হত্যাকাণ্ডের শিকার মা-মেয়ে ও তার পরিবারের সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। সে তাদের চেনে না। আসামি জুবায়ের স্বীকার করে বলেছে টাকার জন্যই সে মা-মেয়েকে হত্যা করেছে। তিনি আরও জানান, বুধবার (২ মার্চ) জুবায়েরকে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে। রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যার আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে।



আমাদের ফেসবুক পেইজ