মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ফরিদপুরে শ্রী নৃসিংহ সেবা সংঘের পরিচালিত ১ম গীতা স্কুল শ্রী নৃসিংহ সনাতনী বিদ্যাপীঠের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত জমকালো আয়োজনে“হাটহাজারী সনাতনী ক্রাশ এন্ড কনফেশন কমিউনিটি” গ্রুপের প্রথম পুণর্মিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ যশোর সরকারি সিটি কলেজ শাখার নতুন কমিটি ঘোষনা সড়কে গাছ ফেলে সাংবাদিককে হত্যা, চার দিনেও কাউকে আটক করেনি পুলিশ ‘উস্কানিমূলক’ পোস্ট না করার শর্তে জামিন পেয়েছে ঝুমন দাস দেবীগঞ্জে ঐতিহাসিক মন্দিরে চুরি ভারতে যোগীরাজ্যে অন্যরূপে ‘ABCD’, এ-তে অর্জুন, বি-তে বলরাম ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে,সুজন মহন্তের ৭ বছর কারাদণ্ড চট্টগ্রামের রাউজানে নানান মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৫দিন ব্যাপী রাস উৎসব ঝিওরী সুভাষ দত্তের বাড়ি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে চার দিনব্যাপী শ্রী শ্রী সার্বজনীন জগদ্ধাত্রী পূজা

নিজেদের তৈরি প্রতিমায় পূজা করে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন রাউজানের তিন স্কুলছাত্র

Spread the love

 

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : অন্তর পাল আকাশ

পাঁচ বছর ধরে নিজেদের তৈরি প্রতিমায় দুর্গাপূজা উদযাপন করছে চট্টগ্রামের রাউজানে তিন স্কুলছাত্র। পড়ালেখার পাশাপাশি নিপুণ হাতের ছোঁয়ায় মৃন্ময়ী প্রতিমা তৈরি করে, কোনো পৌরোহিত ছাড়াই নিজেরাই মন্ত্র পড়ে পূজা করছে তিন কিশোর।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার বিনাজুরী ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সৎসঙ্গ বাড়ির নবম শ্রেণির ছাত্র দুর্জয় চন্দ ও দশম শ্রেণির দুই ছাত্র স্বপ্নীল দাশ ও নয়ন মুহুরী ২০১৮ সাল থেকে প্রতিমা তৈরি করে পূজা উদযাপন করছে। তারা বিনাজুরী নবীন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ছাত্র।

তিনজনের কারো প্রতিমা তৈরির প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নেই। এমনকি গুরু ধরেও কেউ দীক্ষা নেয়নি। অথচ এ বয়সেই নিজেদের হাতে প্রতিমা তৈরি করে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে। ইতিমধ্যে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরালও হয়েছে।

প্রতিমা তৈরির উপকরণ কেনাসহ পূজার খরচের জন্য তারা প্রতিবছর টাকা সঞ্চয় করে। তাদের আগ্রহ দেখে আত্মীয়-স্বজন ও স্থানীয়রা আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। বর্তমানে তাদের মণ্ডপে প্রতিদিনই ভিড় করে ছিলো দূরদূরান্ত থেকে আসা দর্শনার্থী ও স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে স্কুলছাত্র স্বপ্নীল দাশ বলে, ‘আমরা ২০১৮ সাল থেকে নিজেরাই প্রতিমা তৈরি করে, নিজেরাই মন্ত্র পড়ে দুর্গাপূজা করি। প্রতিমা তৈরি করতে সময় বেশি লাগলেও অন্যরকম তৃপ্তি পাই।’

দুর্জয় চন্দ বলে, ‘৫ম শ্রেণি থেকে প্রতিমা তৈরি করে বন্ধুদের সঙ্গে পূজা দিচ্ছি। মন্ত্র আমরা নিজেরাই পড়ি।’

এদিকে ছেলেদের এমন কাজে মুগ্ধ তাদের বাবা-মা, শিক্ষকেরা। নয়ন মুহুরীর মা মম্পি মুহুরী বলেন, ‘আমাদের ছেলেরা যে কাজ করছে আমি গর্ববোধ করি। আমরা উৎসাহ দিচ্ছি।’

রাউজান উপজেলা পূজা উদযান পরিষদের সভাপতি ইউ.পি চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী বলেন, ‘ভালো কাজ করলে ভালো ফল পাবে। আমরা চাই সার্থকভাবে তারা পূজা পালন করুক। আমি পূজা উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

গতকাল (বুধবার) ৫ই অক্টোবর বিকেলে প্রতিমা দর্পণ বিসর্জ্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে সনাতনধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা।

উল্লেখ্য, রাউজানে এবার ২৪৭টি পূজা মণ্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপিত হয়েছে।



আমাদের ফেসবুক পেইজ