শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বসন্তেশ্বরী’র প্রিমিয়ার সো আগামি ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার, চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউট। প্রাবন্ধিক রূপম চক্রবর্ত্তী’র সমাজ রাজনীতি ও সংস্কৃতির খেরোখাতা ভারতে হাইকোর্টের এএসআই দ্বারা তাজমহলের ২২ টি বন্ধ ঘর খোলার অনুমতি ভারতে নাগরিকত্ব পেতে ব্যর্থ হয়ে পাকিস্তানে ফিরে গেছেন প্রায় ৮০০ হিন্দু শরণার্থী। নানান মাঙ্গলিক আয়োজনে অনুষ্ঠিত জাগো হিন্দু পরিষদ পটিয়া উপজেলার কর্মী সম্মেলন বাংলাদেশ মহিলা ঐক্য পরিষদ এর কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার ত্রি বার্ষিক সম্মেলন ২০২২ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সঙ্গে মার্কিন বিশেষ দূতের সঙ্গে বৈঠক মায়ের আর্তনাদে মেয়েদের সম্মেলিত প্রচেষ্টা বাসন্তী পূজায় ও বসন্ত উৎসবে বাগীশ্বরী সংগীতালয় ভারতের উত্তরপ্রদেশ জেলবন্দিদের মানসিক শান্তির জন‍্য শোনানো হবে গায়ত্রী মন্ত্র ও মহা মৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র

নড়াইলে হিন্দু সম্প্রদায়ের বিশাল আয়োজনে মধ্যেদিয়ে বাড়োয়ারি পূজা অনুষ্ঠিত

Spread the love
 
 
উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি: নড়াইল জেলা লোহাগড়া উপজেলার ৮নং দিঘলিয়া ইউনিয়নের লুটিয়া,চরদিঘলিয়া গ্রামে বছরের শুরুতে বাড়োয়ারি  পূজা অনুষ্ঠিত হয়।১৮জানুযারী২০২২ ইং সাল রোজ মঙ্গলবার সকাল হতে প্রস্তুতি নড়াইল জেলার সনাতনধর্মাবলীর বাড়োয়ারি পূজা অনুষ্ঠান।এই অনুষ্ঠানটি সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আনন্দের সাথে সকলে মিলেমিশে উপভোগ করে।দুপুরের সময় বড় ধরনের খাবারের আয়োজন করে থাকে।নিরামিষ জাতীয় খাবারের আয়োজন করে। এদিকে লোহাগড়া উপজেলার ৮নং দিঘলিয়া ইউনিয়নের লুটিয়া গ্রাম এবং চরদিঘলিয়া গ্রামের হিন্দুধর্মাবলী(সনাতনধর্ম)এর লোক উৎসবমুখরভাবে এই পূজার আয়োজন করে।আয়োজনে গ্রামের সমস্ত সনাতনধর্মের মানুষ। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয় মুসলিম ধর্মের কিছু মানুষ,যারা এলাকার বসবাসকারী মানুষ ওতপ্রোতভাবে জড়িত।তবে দুপুরের সময় সকলে সম্মিলিতভাবে পূজা অনুষ্ঠানের খাবার ভোগ করে। সন্ধ্যার পর হতে পূজামণ্ডপে নানান আয়োজনের মধ্যে দিয়ে সাময়িক পূজা অনুষ্ঠান নারী পুরুষ উপস্থিতি হয়ে ঠাকুরের পূজার সময় পার করে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় বছরের শুরুতে এই বাড়োয়ারি পূজা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়, ১২ মাসের নামকরন করে পূজাটি করা হয়। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক বলেন আজ রাত ১০টার শুরু হবে মূল পূজার আনুষ্ঠানিকতা।তবে পূজা মন্ডবে দেখা যায় অনেকেই মিষ্টি,ফল,ফুল হরেক রকমের আয়োজনে আয়োজন। বিশেষ করে ঠাকুরগন বিভিন্ন পূজামণ্ডপে গীতাপাঠ করেন এবং সনাতনধর্মের নিয়মাবলী বাক্য পাঠ করে শোনান।সকলেই মনোযোগ দিয়ে শ্রবন করেন।শাস্ত্র অনুযায়ী বাক্যপাঠ করেন, আনন্দের মধ্যে দিয়ে বাজনার সাথে ধ্বনী বাজিয়ে ঠাকুরের নিয়ম পালন করে।পূজাঅনুষ্ঠানের আশপাশে বিভিন্ন রকমের খাদ্য খাবারের সমারোহ দেখা যায়,বিভিন্ন খাবার দোকান আর শিশু থেকে সকল শ্রেনীর লোকের সমাগম হতে দেখা যায়।শান্তিশৃঙ্খলার সাথে বাড়োয়ারি পূজা শেষ হবে।



আমাদের ফেসবুক পেইজ