রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৬:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
প্রবর্তক সংঘের বিরুদ্ধে আবারো মামলা ঠুকছে ইসকন। আদালতের সমন জারি। (ইসকন) ‘জঙ্গি সংগঠন’ হিসেবে আখ্যায়িত ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে মামলা দায়ের। প্রবর্তক সংঘের আবাসিক হোস্টেলে ছাত্রীর আত্মহত্যা কুড়িগ্রামে প্রাচিন গো-মূর্তি উদ্ধার, পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন একেরপর এক মন্দির চুরির ঘটনা আনোয়ারা দক্ষিণ শোলকাটা গ্রামে ধরা ছোঁয়ার বাইরে অপরাধীরা ওসি প্রদীপ নির্দোষ”সত‍্য উন্মোচনের দাবি সিনিয়র আইনজীবী এ‍্যাড: রানা দাসগুপ্ত রক্ষাকালী মন্দির ও রাস্তাঘাট উন্নয়নে নবনীত পৌর মেয়রের সাথে মতবিনিময় ছিটিয়া পাড়া রক্ষাকালী মন্দির পরিচালনা পরিষদের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে ১৬৭ তম প্রতিষ্ঠা দিবস পঞ্চগড়ের বীগঞ্জ উপজেলার সুন্দরদিঘী ইউনিয়নে শ্রীগীতা শিক্ষা নিকেতন এর শুভ উদ্ভোধন

মাটির বুক চিরে ওঠে আসা ১২০ফুট উঁচু শিব মূর্তিটি ঠাই দাড়িয়ে অন্যের জমিতে

Spread the love

 

প্রকাশ দেব, ঘটা করে ইসা ফাউন্ডেশনের জমিতে ১১২ ফুটে শিবমূর্তির উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী৷ সেই জমির আইনি কাগজপত্র দেখাতে পারেনি তামিলনাড়ু বন দফতর৷ জমিটিকে পুরোপুরি বেআইনি ঘোষণা করল CAG৷

 

 সূত্রে ,বেশ কয়েকটি বেআইনি জমি বিভিন্ন সংস্থাকে দিয়েছে তামিলনাডু বন দফতর৷ ইসা ফাউন্ডেশনকেও এরকমই জমি দেওয়া হয়, তার উপরই শিব মূর্তি স্থাপিত হয়৷ এমনকি Hill Area Conservation Authority (HACA)-র নির্দেশ ছাড়াই হাতির জন্য সংরক্ষিত জঙ্গলে বহুতল সংস্কারের ছাড়পত্র দিয়েছে বন দফতর৷ পশ্চিমঘাট পার্বত্য ভূমি সংরক্ষনের ভার HACA-র উপর৷ সেই HACA-কে গুরুত্ব না দিয়ে জমি কারচুপির অভিযোগ উঠছে বন দফতরের বিরুদ্ধে৷

 

যে জমিতে ১১২ ফুটের শিব তৈরি হয়েছে, সেই জমিও জটে৷ ক্যাগ জানাচ্ছে, ১৯৯৪ ও ২০০৮ সালে ইসা ফাউন্ডেশনকে বন দফতর বিশাল জমি প্রদান করে৷ যার ৩২,৮৫৬ বর্গফুট এলাকায় একাধিক বহুতল তৈরি হয়েছে৷ বল্লুভাপটি গ্রামও সেই জমির ভেতরেই পড়ছে৷

 

কয়েকদিন আগে, একটি প্রকল্পের জন্য HACA-র কাছে NOC চাইতে গেলে ইসা ফাউন্ডেশনের জমি কেলেঙ্কারি ধরা পড়ে৷ NOC দিতে অস্বীকার করে HACA৷ বল্লুভাপটি গ্রামের আদিবাসীরাও ইসা ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে জমি অধিগ্রহণের মামলা দায়ের করে৷ মাদ্রাস হাই কোর্র্টে সেই মামলা এখনও চলছে৷ NGT-র দাবি, বন্য প্রানীর আধিক্য থাকা সত্ত্বেও ১১২ ফুটে শিব মূর্তি তৈরি করেছে ইসা ফাউন্ডেশন৷

 

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে শিব মূর্তি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী৷ সেই সময় পরিবেশ রক্ষক আন্দোলনকারীরা প্রধানমন্ত্রীকে সাবধান করে৷ জমির তদন্তের দাবি জানায়৷ 

 

সূত্র:- “হিন্দু টাইমস”



আমাদের ফেসবুক পেইজ