সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নড়াইলে অবসরপ্রাপ্ত কলেজে  শিক্ষক হত্যার ঘটনায় কেয়ারটেকার সহ ৪ জনকে আটক নড়াইলে অষ্টমী ও কুমারী পূজাঁ অনুষ্ঠিত বাগীশিক চট্রগ্রাম মহানগর সংসদ এর উদ্যােগে শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষ্য বস্ত্র বিতরণ, সেলাই মেশিন প্রদান ও নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ অনুষ্টিত নড়াইলের পল্লীতে হিন্দু কলেজ শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা! প্রিয় চট্টলাবাসীকে শারদীয়া দুর্গা পূজার শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন শ্রী রাজীব তালুকদার বাংলাদেশ গীতা শিক্ষা কমিটি (বাগীশিক)-চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সংসদের উদ্যোগে অনাথদের নিয়ে শারদোৎসব পালিত বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট-চট্টগ্রাম মহানগরের আহবায়ক কমিটি অনুমোদিত বোয়ালমারীতে প্রতিমা ভাংচুর, গ্রেফতার নয়ন শেখ ও রাজু শেখ মৃণাল কান্তি বসু ও দিপক কান্তি বসুর পূর্বপুরুষরা জমিদার ছিলেন লাখাইয়ে পুজা উদযাপন পরিষদ কতৃক বস্তু বিতরণ

রাম মন্দির নির্মাণ অনুষ্ঠানের প্রথম আমন্ত্রণ পত্র পেলেন ইকবাল আনসারি !

রাম মন্দির নির্মাণ অনুষ্ঠানের প্রথম আমন্ত্রণ পত্র পেলেন ইকবাল আনসারি !

হিন্দু মন্দির ভেঙে বাবরি মসজিদ যে জায়গায় তৈরি হয়েছিল সেই জায়গাতেই নির্মাণ করা হচ্ছে রাম মন্দির। আগামী ৫ অগস্ট শুরু হবে মন্দির নির্মাণের কাজ। রাম মন্দিরের সূচনায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৪০ কেজির রূপোর ইঁট স্থাপন করবেন। আর সেই অনুষ্ঠানের প্রথম আমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হলো এক বিশিষ্ট মুসলিম ব্যক্তিত্বকে।

অযোধ্যা মামলার অন্যতম মামলাকারী ইকবাল আনসারিকে প্রথম আমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হয়েছে। সোমবারই সেই আমন্ত্রণপত্র পেয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে ইকবাল আনসারি বলেন, ‘এটা বোধহয় ভগবান রামের ইচ্ছা যে আমি প্রথম এই আমন্ত্রণপত্র পাই। আমি এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করলাম।’ তিনি আরো বলেন, অযোধ্যায় হিন্দু-মুসলিম সম্প্রীতি নিয়েই বাস করে। মন্দির তৈরি হলে অযোধ্যার ভাগ্যও বদলে যাবে। অযোধ্যা হয়ে উঠবে আরো সুন্দর। অনেক কর্মসংস্থানের সুযোগও তৈরি হবে।

গোটা বিশ্বের মানুষ মন্দির দেখতে আসবেন ফলে স্থানীয় মানুষ কাজ পাবেন। ইকবাল আনসারি বলেন, অযোধ্যার কারো মধ্যে কোনো সমস্যা নেই, কষ্ট নেই। অযোধ্যার প্রত্যেকটা কোণায় সব ধর্মের দেব-দেবীর বাসস্থান। তিনি আরো বলেন, ‘রাম মন্দির হচ্ছে বলে আমি খুশি। কোনো ধর্মীয় অনুষ্ঠানে আমাকে ডাকা হলে আমি যাব। এদিকে, ভূমিপূজার ঠিক দু’দিন আগেই সোমবার প্রকাশ্যে এল সেই আমন্ত্রণ পত্র। সেখানে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নাম। মাত্র পাঁচজন থাকবেন মঞ্চে। প্রধানমন্ত্রী ছাড়া থাকবেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত, উত্তরপ্রদেশের গভর্নর আনন্দিবেন পটেল ও মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথ।

এছাড়া মোহান্ত নিত্যগোপাল দাস মঞ্চে থাকতে পারবেন বলে জানা গেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সেখানে থাকতে পারবেন না কোনো সাধারণ মানুষ বা ভক্ত। পাঁচজন বা তার বেশি মানুষের কোনো জমায়েত করা চলবে না ওই এলাকায়। করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনের সব ধরনের প্রোটোকল বা নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে।



আমাদের ফেসবুক পেইজ