রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গিলানী চা বাগান সহ বিভিন্ন চা বাগানে দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে চলছে প্রতিমায় রংতুলির কাজ অবাঞ্ছিত ওষুধের স্ট্রিপ দিয়ে এলাকায় দুর্গা প্রতিমা তৈরী করলেন কলকাতার এক গৃহবধূ। কিশোর সংঘ পুজা উদযাপন পরিষদ এর গৌরব ও ঐতিহ্যের ৬ যুগ পূর্তি লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতনের দীর্ঘ ২২ বছর পর নতুন কমিটি গঠিত দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর পাকিস্তানে ১২শ বছরের প্রাচীন মন্দির দখলমুক্ত প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে পিরোজপুরে ৪ কিশোর গ্রেপ্তার রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার লংগদু উপজেলার মাইনীতে সনাতনী শিক্ষার্থীদের মাঝে শ্রীমদ্ভগবদগীতা যথাযথ দান নড়াইলে হিন্দু বাড়ীতে আগুন দেওয়া যুবক রোমান মোল্লা রিমান্ডে বাগীশিক মানিকছড়ি উপজেলা সংসদের এি -বার্ষিক সম্মেলন সম্পূর্ণ নড়াইলে সাহাপাড়ায় হামলার পাঁচজনকে গ্রেপ্তার

লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতনের দীর্ঘ ২২ বছর পর নতুন কমিটি গঠিত

Spread the love

বিপ্লব কান্তি দাশ,লামা প্রতিনিধিঃ লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতনের দীর্ঘ ২২ বছর পর সাবেক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন ভাবে পরিচালনা পরিষদের কমিটি গঠিত হয়েছে।(২৬ আগষ্ট ২০২২ ইং) শুক্রবার সকালে এক আলোচনা সভার মাধ্যমে ৯ সদস্য বিশিষ্ট একটি নতুন কমিটি গঠিত হয়। উক্ত কমিটি সভাপতি হিসেবে মনোনীয় হয়েছেন অনুপ কান্তি দাশ,সি:সহ-সভাপতি হিসেবে অলক কান্তি চৌধুরী, সহ সভাপতি হিসেবে মানস দাশ,সাধারন সম্পাদক হিসেবে বাসু কান্তি দাশ,যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক হিসেবে সঞ্জয় কুমার দাশ,অর্থ সম্পাদক হিসেবে বাসু কর্মকার, সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে রাজিব রক্ষিত,কার্যকরী সদস্য হিসেবে সঞ্জয় দাশ,বিপ্লব দাশ মনোনীত হয়েছে। উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য হিসেবে মনোনীত হয়েছেন পরিচালনা পরিষদের সাবেক সভাপতি সমীরন দাশ, বাসুদেব পালিত, মৃদুল ধর, বিজয় আইচ,সুনীল নাথ। লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতন ২০০০ সালের (১৪ এপ্রিল) প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল দীর্ঘ বাইশ বছর ধরে লামা কেন্দ্রীয় হরি মন্দিরে সনাতনী শিশু,কিশোরদের ধর্মীয় গীতা শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছেন এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ। বর্তমানে এই গীতা শিক্ষা নিকেতনে প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী আছে,ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হচ্ছে। লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতন এর নব গঠিত কমিটির সাধারন সম্পাদক বাসু কান্তি দাশ বলেন,দীর্ঘ বাইশ বছর পর নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে যারা সাথে ছিলেন ও প্রয়াত হয়েছেন সকলের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করি ও যারা বিভিন্ন ভাবে গীতা স্কুল পরিচালনায় সহযোগিতা করে আসছেন সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করি। আশা করি ভবিষৎতে ও সুন্দর ভাবে এই স্কুল পরিচালনায় সকলের সহযোগিতা পাব।



আমাদের ফেসবুক পেইজ