মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ইকবাল পাগল, খাবারের লোভে সব করতে পারে: দাবি পরিবারের সংখ্যালঘু নির্যাতনের প্রতিবাদে প্রতীকী পথ নাটক পরিবেশন করেন নির্মাতা-শিল্পী-তারকারা মাসিক সনাতন বার্তা” পত্রিকার শারদীয় দুর্গা পূজা স্মারকের প্রকাশনা অনুষ্ঠিত চকরিয়ায় শারদীয় দুর্গোৎসব ঘিরে ৪৮টি মন্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তে প্রস্তুতি স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার আয়োজনে পূজার উপহারসামগ্রী পেল আড়াইহাজার হিন্দু পরিবার প্রতিমা ভাঙচুরের অভিযোগে জয়পুরহাটে যুবক আটক আনোয়ারা পচ্ছিম রায়পুর লোকনাথ সেবাশ্রমে ত্রিকালদর্শী শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার ২৯১ তম আবির্ভাব দিবস সম্পন্ন আনোয়ারায় সৎসঙ্গের বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত বাঁশখালী ঋষিমঠের অনাথ শিশুদের পাশে প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ বাপ্পী সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে বৃষ্টি উপেক্ষা করে ঐক্যবদ্ধ সনাতন সমাজের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ

শ্রীমঙ্গলের নির্মাই শিববাড়িতে শিবচতুর্দশী পূজা ও দু’দিনব্যাপী মেলা অনুষ্ঠিত

Spread the love

সৌরভ আদিত্য:  মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায় আশিদ্রোন ইউনিয়নে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী শ্রীশ্রী নির্মাই শিববাড়িতে মহাশিবচতুর্দশী উপলক্ষে পূণ্যস্নান পূজো ও ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ মেলা। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত ভক্তদের ভীড়ে উৎসব মুখর হয়ে উঠে নির্মাই শিববাড়ি প্রাঙ্গন। চলছে দু’দিনব্যাপী মেলা। শুক্রবার (১২ মার্চ) সকালে শ্রীমঙ্গলের ঐতিহ্যবাহী নির্মাই শিববাড়ীতে গিয়ে দেখা যায়, হাজারো ভক্ত সমাগমে চলছে শিবচতুর্দশী পূজো। এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে সনাতন ধর্মলম্বীরা দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শিবের আরাধনা ও পূণ্যস্নান করার জন্য আসতে থাকে।

শিব চর্তুদশী উপলক্ষে দেশীয় এবং বিভিন্ন হাতের তৈরী পন্য নিয়ে বসেছে মেলা।মেলায় হরেক রকম জিনিসপত্রের সাথে বিভিন্ন মুখরোচক খাবারও উঠেছে। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সভাপতি স্বপন রায় জানান, এই নির্মাই শিববাড়িটি একটি প্রাচীন তীর্থস্থান। সনাতন ধর্মালম্বীরা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই সময়ে পূণ্যস্নান করতে আসেন এবং এসময় ভক্তরা শিবের পুজো দিয়ে থাকেন। এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে এখানে বসে গ্রামীণ মেলা যেখানে প্রচুর দর্শনার্থীদের উপস্থিতি হয়।

বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোট শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সম্পাদক লিটন দেব বলেন, এখানে পরিবার নিয়ে প্রতিবছরই ঘুরতে আসি সাথে পুজো অনুষ্ঠান এবং স্নান করা হয়। আমরা মনে করি সরকারি অনুদান বা সহযোগিতা পেলে এটি আরো সুন্দর একটি দর্শনীয় পর্যটন স্থান হতে পারে।



আমাদের ফেসবুক পেইজ