রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গিলানী চা বাগান সহ বিভিন্ন চা বাগানে দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে চলছে প্রতিমায় রংতুলির কাজ অবাঞ্ছিত ওষুধের স্ট্রিপ দিয়ে এলাকায় দুর্গা প্রতিমা তৈরী করলেন কলকাতার এক গৃহবধূ। কিশোর সংঘ পুজা উদযাপন পরিষদ এর গৌরব ও ঐতিহ্যের ৬ যুগ পূর্তি লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতনের দীর্ঘ ২২ বছর পর নতুন কমিটি গঠিত দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর পাকিস্তানে ১২শ বছরের প্রাচীন মন্দির দখলমুক্ত প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে পিরোজপুরে ৪ কিশোর গ্রেপ্তার রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার লংগদু উপজেলার মাইনীতে সনাতনী শিক্ষার্থীদের মাঝে শ্রীমদ্ভগবদগীতা যথাযথ দান নড়াইলে হিন্দু বাড়ীতে আগুন দেওয়া যুবক রোমান মোল্লা রিমান্ডে বাগীশিক মানিকছড়ি উপজেলা সংসদের এি -বার্ষিক সম্মেলন সম্পূর্ণ নড়াইলে সাহাপাড়ায় হামলার পাঁচজনকে গ্রেপ্তার

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াত নিহত

Spread the love

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ভারতের প্রতিরক্ষাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত নিহত হয়েছেন। তাঁর স্ত্রীসহ হেলিকপ্টারের আরও ১১ আরোহী নিহত হন।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে তামিলনাড়ুতে ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

রাশিয়ার তৈরি এমআই-১৭ভি৫ মডেলের হেলিকপ্টারটিতে ১৪ জন আরোহীর মধ্যে পাঁচজন ক্রু ও নয়জন যাত্রী ছিলেন। যাত্রীদের মধ্যে বিপিন রাওয়াত, তাঁর স্ত্রী মাধুলিকা রাওয়াত ছাড়াও সেনা কমান্ডোরা ছিলেন।

দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে তামিলনাড়ুর নীলগিরি হিলস এলাকায় হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। বেলা ২টার দিকে ভারতীয় বিমানবাহিনী ওই দুর্ঘটনার খবর জানায়। হেলিকপ্টারের ১৪ আরোহীর মধ্যে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে কয়েক ঘণ্টা পর জানা যায়। তবে বিপিন রাওয়াতের অবস্থা সম্পর্কে কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছিল না।

সন্ধ্যায় ভারতীয় বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে বিপিন রাওয়াতসহ ১৩ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয় বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

বিপিন রাওয়াতকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি তামিলনাড়ুর কাছে সুলুরের একটি বিমানঘাঁটি থেকে উড্ডয়ন করেছিল। তিনি রাজ্যের উরাহগামানরালামে অবস্থিত একটি ডিফেন্স সার্ভিস স্টাফ কলেজে যাচ্ছিলেন। ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধান জে জে সিং বলেন, ওই দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় শনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়েছে।

৬৩ বছর বয়সী জেনারেল বিপিন রাওয়াত ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে ভারতের প্রথম চিফ অব ডিফেন্স স্টাফের দায়িত্ব নেন। ভারতের সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীকে সমন্বয়ের জন্য ওই পদ সৃষ্টি করা হয়েছিল।

চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ হিসেবে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর প্রধান সামরিক উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করতেন বিপিন রাওয়াত। পাশাপাশি ভারতের রাজনৈতিক নেতৃত্বের পরামর্শকের দায়িত্বও পালন করতেন তিনি।

সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতকে নতুন তৈরি করা ভারতের সামরিকবিষয়ক বিভাগের প্রধান হিসেবেও নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।

১৯৭৮ সালে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হিসেবে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগ দেন বিপিন রাওয়াত। সেনাবাহিনীতে চার দশকের পেশাগত জীবনে ভারতের সংঘাতপ্রবণ জম্মু ও কাশ্মীরে কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি চীন সীমান্তেও ভারতীয় বাহিনীর নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।



আমাদের ফেসবুক পেইজ